সুরক্ষায় পাঁচে পাঁচ পেল Tata Altroz

শীঘ্রই লঞ্চ হবে Tata Altroz। লঞ্চের আগেই NCAP সুরক্ষা পরীক্ষায় পাঁচে পাঁচ পেল এই প্রিমিয়াম হ্যাচব্যাক। 22 জানুয়ারি এই গাড়ি লঞ্চ করবে Tata Motors।

ছবি দেখুন
22 ডিসেম্বর লঞ্চ হবে Tata Altroz

হাইলাইটস

  • যাত্রী সুরক্ষায় পাঁচে পাঁচ পেল Tata Altroz
  • এই গাড়িতে রয়েছে ডুয়াল ফ্রন্ট এবিএস, ইবিডি, সিটবেল্ড রিমাইন্ডার
  • 22 জানুয়ারি লঞ্চ হবে এই গাড়ি

শীঘ্রই লঞ্চ হবে Tata Altroz। লঞ্চের আগেই NCAP সুরক্ষা পরীক্ষায় পাঁচে পাঁচ পেল এই প্রিমিয়াম হ্যাচব্যাক। 22 জানুয়ারি লঞ্চ হবে এই গাড়ি। তার আগেই নিউ কার অ্যাসেসমেন্ট প্রোগ্রাম সুরক্ষা পরীক্ষায় 5 স্টার Tata Altroz। এর আগে কোম্পানির Nexon এই সুরক্ষা পরীক্ষায় পাঁচ পেয়েছিল। মোট 17 পয়েন্টের মধ্যে 16.13 স্কোর করেছে Tata Altroz।

h3avk2rk

সুরক্ষা জন্য Tata Altroz গাড়িতে রয়েছে ডুয়াল ফ্রন্ট এবিএস

বলেন, “নতুন এই গাড়ির 5 স্টার রেটিং পাওয়ার ফলে বোঝা যাচ্ছে সুরক্ষার সেরা স্তরে পৌঁছেছে Tata Motors। Tata Motors-এর এই ফল অন্য গাড়ি প্রস্তুতকারী কোম্পানিগুলিকে সুরক্ষার উন্নতি করতে অনুপ্রেরণা দেবে বলে আশা প্রকাশ করছি।”

2f5td3l

পেট্রল ও ডিজেল ভেরিয়েন্টে পাওয়া যাবে Tata Altroz

সুরক্ষা জন্য Tata Altroz গাড়িতে রয়েছে ডুয়াল ফ্রন্ট এবিএস, ইবিডি, সিটবেল্ড রিমাইন্ডার, রিয়ার পার্কিং সেন্সর আইএসওএফআইএক্স চাইল্ড সিট মাউন্ট। সব ভেরিয়েন্টেই এই সুরক্ষা ফিচার ব্যবহার করেছে Tata Motors।

Tata Altroz গাড়িটি 3990 মিমি লম্বা, 1755 মিমি চওড়া ও 1523 মিমি উঁচু। নতুন প্রিমিয়াম হ্যাচব্যাকে 2501 মিমি হুইলবেস থাকছে। মাটি থেকে 165 মিমি উঁচু এই গাড়ির পেট্রল ভেরিয়েন্টের ওজন 1036 কিলোগ্রাম। ডিজেল ভেরিয়েন্টে Tata Altroz এর ওজন 1150 কিলোগ্রাম।

Tata Altroz গাড়ির টপ ভেরিয়েন্টে থাকবে প্রোজেক্টর হেডল্যাম্প, এলইডি ডিআরএল, সামনে ও পিছনে থাকছে ফগ ল্যাম্প। এই গাড়ির ড্রাইভারের সিট চার দিন থেকে অ্যাডজাস্ট করা যাবে। কেবিনে থাকছে 7 ইঞ্চি টিএফটি ডিসপ্লে। এই ডিসপ্লেতে থাকছে অ্যাপেল কারপ্লে আর অ্যানড্রয়েড অটো সাপোর্ট। এছাড়াও থাকছে পাওয়ার উইন্ডো, বোতাম টিপে ইঞ্জিন স্টার্ট ও স্টপ, ফাস্ট চার্জিং, স্মার্ট কি, পিছনের সিটে এসি ভেন্ট, ইলেকট্রিক টেলগেট, ক্রুজ কন্ট্রোল সহ একাধিক আকর্ষণীয় ফিচার।

0 Comments

Tata Altroz এ থাকছে Revotron 1.2 লিটার ইঞ্জিন। 1199 cc তিন সিলিন্ডার ইঞ্জিনে 85 bhp শক্তি আর 113 Nm টর্ক পাওয়া যাবে। অন্যদিকে ডিজেল ভার্সনে থাকছে একটি 1497 cc চার সিলিন্ডার ইঞ্জিন। এই ইঞ্জিনে সর্বোচ্চ 89 bhp শক্তি আর 200 Nm টর্ক পাওয়া যাবে।

অটো সংক্রান্ত সাম্প্রতিক খবর আর রিভিউস জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube.

Be the first one to comment
Thanks for the comments.