ইলেকট্রিকে চলবে নতুন Tata Nexon; শুরু হল বুকিং

এক চার্জে সর্বোচ্চ 300 কিমি পথ চলবে Tata Nexon EV। এই গাড়ির ইলেকট্রিক মোটরে 245 Nm টর্ক পাওয়া যাবে। 0-100 কিমি প্রতি ঘণ্টা গতি তুলতে সময় লাগবে 9.9 সেকেন্ড।

ছবি দেখুন
21,000 টাকার বিনিময়ে গোটা দেশের নির্বাচিত কিছু ডিলারের কাছে Tata Nexon EV বুকিং শুরু হয়েছে

হাইলাইটস

  • এই গাড়িতে থাকবে একটি 30.2 kWh ব্যাটারি
  • 60 মিনিটে এই গাড়ির ব্যাটারি 80 শতাংশ চার্জ করা যাবে
  • 21,000 টাকার বিনিময়ে শুরু হয়েছে বুকিং

শীঘ্রই সম্পূর্ণ ইলেকট্রিক ভেরিয়েন্টে লঞ্চ হবে Tata Nexon। ভারতেই প্রথম এই গাড়ি লঞ্চ করবে Tata Motors। পরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই গাড়ি লঞ্চ হবে। যদিও এটা কোম্পানির প্রথম ইলেকট্রিক গাড়ি নয়। ইতিমধ্যেই ইলেকট্রিক ভার্সানে লঞ্চ হয়েছে Tata Tigor। ইলেকট্রিক ভার্সানে Nexon গাড়িতে থাকছে Ziptron প্রযুক্তি। 2020 সালের জানুয়ারি মাসে লঞ্চ হবে Tata Nexon EV। ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে এই গাড়ির বুকিং। 21,000 টাকার বিনিময়ে গোটা দেশের নির্বাচিত কিছু ডিলারের কাছে Tata Nexon EV বুকিং শুরু হয়েছে। আগামী মাসে লঞ্চের সময় নতুন ইলেকট্রিক গাড়ির দাম ঘোষণা করবে Tata Motors। আমাদের অনুমান 15 লক্ষ টাকা থেকে 17 লক্ষ টাকা দামে ভারতে এই গাড়ি লঞ্চ হবে।

লিকুইড কুলড লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারির মাধ্যমে চলবে এই এই গাড়ির মোটর। জল ও ধুলোয় এই ব্যাটারির কোন ক্ষতি হবে না। এই গাড়িতে থাকবে একটি 30.2 kWh ব্যাটারি। এক চার্জে সর্বোচ্চ 300 কিমি পথ চলবে Tata Nexon EV। এই গাড়ির ইলেকট্রিক মোটরে 245 Nm টর্ক পাওয়া যাবে। 0-100 কিমি প্রতি ঘণ্টা গতি তুলতে সময় লাগবে 9.9 সেকেন্ড। মাত্র 60 মিনিটে এই গাড়ির ব্যাটারি 80 শতাংশ চার্জ করা যাবে। ফাস্ট চার্জিং ব্যবহার করলে প্রতি মিনিট চার্জিংয়ে 4কিমি পথ চলতে পারবে এই গাড়ি। 50 শতাংশ চার্জে 150 কিমি চলবে ইলেকট্রিক Tata Nexon।

বাইরে থেকে সাধারণ Tata Nexon আর ইলেকট্রিক ভার্সানে বিশেষ পার্থক্য থাকছে না। এই গাড়ির সামনে থাকছে প্রজেক্টর হেড ল্যাম্প, এলইডি ডে-টাইম রানিং লাইট। ক্রোম বেজেলের সাথেই এই গাড়িতে থাকছে ফগল্যাম্প। নতুন ইলেকট্রিক গাড়িতে সম্পূর্ণ নতুন অ্যালয় হুইল ব্যবহার করেছে Tata Motors।

0 Comments

ইলেকট্রিক ভার্সানে কেবিনেও খুব বেশি পার্থক্য থাকছে না। ইলেকট্রিক ভার্সানে Tata Nexon গাড়ির কেবিনে থাকছে একটি 7.0 ইঞ্চি ইন্সট্রুমেন্ট ক্লাস্টার। Tata Altroz গাড়িতে একই ডিসপ্লে ব্যবহার হয়েছে। কেবিনের টাচ-স্ক্রিন ডিসপ্লেতে থাকছে Android Auto আর Apple CarPlay সাপোর্ট। 

অটো সংক্রান্ত সাম্প্রতিক খবর আর রিভিউস জানতে, লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube.